ই-পাসপাের্ট (E- Passport)

Spread the love

ই-পাসপাের্ট (E- Passport)

অপর নাম- বায়ােমেট্রিক পাসপাের্ট।

প্রথম চালু করে ১৯৯১ সালে- মিশর ও ১৯৯৭ সালে মালয়েশিয়া।

বাংলাদেশ চালু করে- ২২ জানুয়ারি, ২০২০

ই-পাসপাের্ট চালুকারী দেশ হিসেবে বাংলাদেশের অবস্থান- ১১৯তম।

ই-পাসপাের্ট (E- Passport)
ই-পাসপাের্ট (E- Passport)

বাংলাদেশ ই-পাসপাের্ট চালু করতে চুক্তি করে- জার্মানির সাথে। 

বাংলাদেশ ই-পাসপাের্ট নিরাপত্তা দিবে- ৩৮ধরনের। 

বাংলাদেশ ই-পাসপাের্ট ব্যবহারকারী হবে- ৩০ মিলিয়ন।

E- passport

Bangladesh Machine Readable (MRT) ই-পাসপাের্ট চালু করে- ২০১০ সালে।

একুশ ই-বুক চালু করে- ২০১৬ সালে।

২২ ধরনের সেবা নিয়ে স্মার্ট ভােটার আইডি কার্ড চালু হয়- ২০১৬ সালে

আরও পড়ুনঃ- ফিলিস্তিন / প্যালেস্টাইন সম্পর্কে

বাংলাদেশের -পাসপোর্টের মেয়াদঃ-  ১৮ থেকে ৫৫ বছর বয়সীদের জন্য ১০ বছর মেয়াদী এবং ১৮ বছরের কম বয়সী বা ৫৫ বছরের বেশি বয়সীদের জন্য ৫ বছর মেয়াদী।

বাংলাদেশ থেকে ই-পাসপোর্ট করতে ক্লিক করুনঃ- https://www.epassport.gov.bd/landing

কর

ই- পাসপোর্ট

3 thoughts on “ই-পাসপাের্ট (E- Passport)

Leave a Reply

Your email address will not be published.