ইসলামে বন্ধু নির্বাচনের বিধান 3699

Spread the love

ইসলামে বন্ধু নির্বাচনের বিধান 3699

বন্ধু নির্বাচনে সতর্ক হোন।সাহায্যকারী, হেল্পিহ্যান্ড, অন্তরঙ্গ বন্ধু বানাতে সতর্কতা অবলম্বন করুন। কারণ আপনার সাথী হতে পারে আপনার দুনিয়া ও পরকালের পার হওয়ার কারণ। আবার হতে পারে জীবনের চরম অশান্তি, কষ্ট, ব্যর্থতা, জাহান্নামের কারণ।

যেমন একটি নেশাখোর বন্ধু আপনাকে শুধু সিগারেট টানতে আর মদ খেতে ডাকবে। সে আপনাকে তার কাজে লিপ্ত করবে। আর একজন দ্বীনদার আপনাকে কুরআন শিক্ষায় উৎসাহিত করবে। আপনার হাশর,মিযান,পুলসিরাত সহজ করে দিবে।

কিয়ামতের দিন অসৎ সঙ্গীর জন্য আফসোস করতে হবে। আল্লাহ তা‘আলা ইরশাদ করেন:-

﴿ يَٰوَيۡلَتَىٰ لَيۡتَنِي لَمۡ أَتَّخِذۡ فُلَانًا خَلِيلٗا ٢٨ لَّقَدۡ أَضَلَّنِي عَنِ ٱلذِّكۡرِ بَعۡدَ إِذۡ جَآءَنِيۗ وَكَانَ ٱلشَّيۡطَٰنُ لِلۡإِنسَٰنِ خَذُولٗا ٢٩ ﴾ [الفرقان: ٢٧، ٢٨]

‘হায় আমার দুর্ভোগ, আমি যদি অমুককে বন্ধুরূপে গ্রহণ না করতাম। অবশ্যই সে তো আমাকে উপদেশবাণী থেকে বিভ্রান্ত করেছিল, আমার কাছে তা আসার পর। আর শয়তান তো মানুষের জন্য চরম প্রতারক।’ {সূরা আল-ফুরকান, আয়াত: ২৭-২৮}

আরও পড়ুনঃ- সূর্য/চন্দ্রগ্রহণে গর্ভবতীরা কিছু খেতে পারবে? ইসলামি বিধান কি?

একজন উস্ত বন্ধু যেমন আপনার  জীবনেব গঠিপাল্টে দিতে পাবে, তেমনি একজন অসৎ বন্ধু জীবনকে ধ্বংসের  চুড়ান্ত সীমায়পৌছ দিতে পারে।শেষ বিচারের দিন সকল বন্ধুই শত্রুতে পরিণত হবে তবে একমাত্র সৎ বন্ধুই  সেদিন প্রকৃত বন্ধু পরিচয়  দেবে

(আলহাদীস।)

সৎ সঙ্গ ও সঙ্গী বিষয়ে আমরা যা শুনি ও পাঠ্যে পড়ি নবী করীম সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়াসাল্লাম একদিকে যেমন সৎ সঙ্গী গ্রহণে উৎসাহিত করেছেন, অন্যদিকে তেমন অসৎ সঙ্গী থেকে দূরে থাকতে অতি তাকিদ দিয়েছেন। এ বিষয়ে একটি চমৎকার হাদীস বর্ণিত হয়েছে আবূ মূসা আশ‘আরী রাদিয়াল্লাহু ‘আনহু কর্তৃক। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন,

«مَثَلُ الجَلِيسِ الصَّالِحِ وَالجَلِيسِ السَّوْءِ، كَمَثَلِ صَاحِبِ المِسْكِ وَكِيرِ الحَدَّادِ، لاَ يَعْدَمُكَ مِنْ صَاحِبِ المِسْكِ إِمَّا تَشْتَرِيهِ، أَوْ تَجِدُ رِيحَهُ، وَكِيرُ الحَدَّادِ يُحْرِقُ بَدَنَكَ، أَوْ ثَوْبَكَ، أَوْ تَجِدُ مِنْهُ رِيحًا خَبِيثَةً»

‘সৎ ও অসৎ বন্ধুর উদাহরণ আতর বিক্রেতা ও কামারের ন্যায়। আতর বিক্রেতা হয়তো তোমাকে একটু আতর লাগিয়ে দেবে, অথবা তুমি তার কাছ থেকে আতর ক্রয় করবে, অথবা তুমি তার কাছে আতরের ঘ্রাণ পাবে। আর কামার হয়তো তোমার দেহ বা কাপড় পুড়িয়ে দেবে নয়তো তার কাছ থেকে খারাপ গন্ধ পাবে।’ [বুখারী : ২১০১; মুসলিম : ২৬২৮]

ইসলামে বন্ধু নির্বাচনের বিধান 3699
বন্ধু নির্বাচন

ইসলামে বন্ধু নির্বাচনের বিধান 3699 ইসলামে বন্ধু নির্বাচনের বিধান 3699 ইসলামে বন্ধু নির্বাচনের বিধান 3699 ইসলামে বন্ধু নির্বাচনের বিধান 3699

2 thoughts on “ইসলামে বন্ধু নির্বাচনের বিধান 3699

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *