ছোলার উপকারিতা 22

Spread the love

ছোলার উপকারিতা

ছােলার স্বাস্থ্য উপকারিতা সম্পর্কে আমরা কমবেশী সকলেই জানি , আমাদের দেশে রমজান মাসে ইফতারের সময় জনপ্রিয় খাবার হলাে ছােলা। ছােলার ডাল নানাভাবে খাওয়া হয়। এটি দেহকে করে দৃঢ়, শক্তিশালী, হাড়কে করে মজবুত। রােগ প্রতিরােধক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য এর ভূমিকা অপরিহার্য। এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম ।

 কাঁচাছােলার গুণ সম্পর্কে আমরা সবাই জানি। প্রতি ১০০ গ্রাম ছােলায় আমিষ পায় ১৮ গ্রাম, কার্বোহাইড্রেট প্রায় ৬৫ গ্রাম, ফ্যাট মাত্র ৫ গ্রাম, ২০০ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম, ভিটামিন-এ প্রায় ১৯২মাইক্রোগ্রাম এবং প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি১ ও বি-২ আছে। এছাড়াও ছােলায় বিভিন্ন প্রকার ভিটামিন, খনিজ লবণ, ম্যাগনেশিয়াম ও ফসফরাসের মতে উপাদান

ছোলা শাক
ছোলা শাক

উচ্চমাত্রার প্রােটিনসমৃদ্ধ খাবার ছােলা। এটি কাঁচা, সেদ্ধ বা তরকারি রান্না করেও খাওয়া যায় । ডাল হিসেবে ছোলা পুষ্টিকর একটি ডাল । এটি মলিবেডনাম এবং ম্যাঙ্গানিজ এর চমৎকার উৎস। ছােলাতে প্রচুর পরিমাণে ফলেট এবং খাদ্যআঁশ আছে। সেইসাথে আছে আমিষ, ট্রিপটোফান, কপার, ফসফরাস এবং আয়রন । হৃদরােগের ঝুঁকি কমাতে। অস্ট্রেলিয়ান গবেষকরা দেখিয়েছেন যে, খাবারে ছােলা যুক্ত করলে টোটাল কোলেস্টেরল এবং খারাপ কোলেস্টেরল এর পরিমাণ কমে যায়। ছােলাতে দ্রবণীয় এবং অদ্রবণীয় উভয় ধরনের খাদ্যআঁশ আছে যা হৃদরােগে আক্রান্ত্ম হওয়ার ঝুঁকি কমিয়ে দেয়। আঁশ, পটাসিয়াম, ভিটামিন-সি এবং ভিটামিন বি৬ হৃদযন্ত্রের স্বাস্থ্য ভালাে রাখতে সাহায্য করে। ফলে হৃদরােগের ঝুঁকি কমে যায়। এর ডাল আঁশসমৃদ্ধ যা রক্তে কোলেস্টেরলের পরিমাণ কমাতে সাহায্য করে। এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, যারা প্রতিদিন ৪০৬৯ মিলিগ্রাম ছােলা খায় হৃদরােগ থেকে তাদের মৃত্যুর ঝুঁকি ৪৯% কমে যায় ।

ছোলা গাছের ছবি
ছোলা গাছের ছবি
ডায়াবেটিসে উপকারী

ছােলার স্বাস্থ্য উপকারিতা অনেক। এতে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের ভিটামিন উপাদান যা আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য খুবই দরকারী। ডায়বেটিস রোগীদের জন্য ছোলা বেশ উপকারি খাবার। ছােলার শর্করা বা কার্বোহাইডেটের ‘গ্লাইসেমিক ইনডেক্স’ কম। তাই ডায়াবেটিক রােগীদের জন্য ছোলার শর্করা ভালাে।

 কোলেস্টেরল

ছােলা শরীরের অপ্রয়ােজনীয় কোলেস্টেরল কমিয়ে দেয়। ছােলার ফ্যাট বা তেলের বেশিরভাগ পলিআনস্যাচুরেটেড ফ্যাট, যা শরীরের জন্য ক্ষতিকর নয়। প্রােটিন, কার্বোহাইড্রেট ও ফ্যাট ছাড়া ছােলায় আরও আছে বিভিন্ন ভিটামিন ও খনিজ লবণ রয়েছে ।

যৌনশক্তি বৃদ্ধিতে

যৌনশক্তি বৃদ্ধিতে এর ভূমিকা যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ। ছােলায় বিভিন্ন প্রকার ভিটামিন, পটাসিয়াম, ভিটামিন-সি এবং ভিটামিন বি৬, খনিজ লবণ, ম্যাগনেশিয়াম ও ফসফরাসের মতে উপাদান যা যৌনশক্তির জন্য বেশ ধরকারী উপাদান। ছােলা বা বুটের শাক শরীরের জন্য ভীষণ উপকারী। তাই শুধু রমজান মাস নয়, ১২ মাসেই ছােলা খাওয়া দরকার।

রােগ প্রতিরােধ ক্ষমতা বৃুদ্ধি করে

ছােলার স্বাস্থ্য উপকারিতা হলো, ছােলায় বিভিন্ন প্রকার ভিটামিন, পটাসিয়াম, ভিটামিন-সি এবং ভিটামিন বি৬, খনিজ লবণ, ম্যাগনেশিয়াম ও ফসফরাসের মতে উপাদান যা দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে সহয়তা করে থাকে। কাঁচাছােলা ভিজিয়ে কাঁচা আদার সঙ্গে খেলে শরীরে আমিষ ও অ্যান্টিবায়ােটিকের চাহিদা পূরণ হয় । আমিষ মানুষকে শক্তিশালী ও স্বাস্থ্যবান বানায় এবং অ্যান্টিবায়ােটিক যে কোনাে অসুখের জন্য প্রতিরােধ গড়ে।

কাঁচা ছোলা
ছোলার উপকারিতা
জ্বালাপােড়া দূর করে

সালফার নামক খাদ্যউপাদান থাকে এই ছােলাতে। সালফার মাথা গরম হয়ে যাওয়া, হাত-পায়ের তলায় জ্বালাপােড়া কমায়।

মেরুদন্ডের ব্যথা দূর করে।

এছাড়াও ছোলাতে ভিটামিন-বি নামক উপাদান আছে পর্যাপ্ত পরিমাণে। ভিটামিন-বি কমায় মেরুদন্ডের ব্যথা, স্নায়ুর দুর্বলতা মতো আরও অনেক রোগ।

ক্যান্সার রােধে

কোরিয়ান গবেষকরা তাদের গবেষণায় প্রমাণ করেছেন যে, বেশি পরিমাণ ফলিক এসিড খাবারের সাথে গ্রহণের মাধ্যমে নারীরা কোলন ক্যান্সার এবং রেক্টাল ক্যান্সার এর ঝুঁকি থেকে নিজেদেরকে মুক্ত রাখতে পারেন। এছাড়া ফলিক এসিড রক্তের অ্যালার্জির পরিমাণ কমিয়ে অ্যাজমার প্রকোপও কমিয়ে দ্যায়।

কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে।

 ছােলায় খাদ্য আঁশও আছে পচুর পরিমাণে। এ আঁশ কোষ্ঠকাঠিন্য সারাতে বেশ কার্যকর ভূমিকা পালন করে থাকে। খাবারের আঁশ হজম হয় না এভাবেই খাদ্যনালী অতিক্রম করতে থাকে, তাই পায়খানার পরিমাণ বাড়ে এবং পায়খানা নরম থাকে তাই ছােলা খাওয়ার স্বাস্থ্য উপকারিতা ব্যাপক।

ছােলার স্বাস্থ্য উপকারিতা অনেক যা আমাদের দৈনন্দিক জীবন যাপনের জন্য খুব দরকারী। ছোলা অত্যন্ত পুষ্টিকর খাবার, এটি আমিষের একটি উল্লেখযােগ্য উৎস। এতে আমিষ মাংস বা মাছের পরিমাণের প্রায় সমান। কাঁচাছােলা ভীষণ উপকারী। তবে ছোলার ডালের তৈরি ভাজা-পােড়া খাবার যত কম খাওয়া যায় ততই ভালাে। তাই হজমশক্তি বুঝে ছােলা হােক পরিবারের শক্তি।  

ছোলা খাওয়ার সতর্কতাঃ

ছােলার স্বাস্থ্য উপকারিতা “র পাশাপাশি কিছু সমস্যাও রয়েছে যেমনঃ-

  • কিডনির রােগীদের ছােলা খাওয়া এড়িয়ে যাওয়া উচিত।
  • ইউরিক এসিড বাড়ায়।
  • ভাজা ছােলা রক্তচাপ বাড়িয়ে দেয়
  • তেল, মশলা দিয়ে রান্না করা ছােলা ওজন বাড়িয়ে থাকে।
ছোলার উপকারিতা 22
ছোলার উপকারিতা 22

ছোলার উপকারিতা ছোলার উপকারিতা ছোলার উপকারিতা ছোলার উপকারিতা ছোলার উপকারিতা ছোলার উপকারিতা

One thought on “ছোলার উপকারিতা 22

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *