ভিটামিন ডি এর উৎস অভাব জনিত রোগ এর কুফল

Spread the love

ভিটামিন ডি এর উৎস অভাব জনিত রোগ এর কুফল

কোন কোন খাবারে ভিটামিন ডি রয়েছে?

ভিটামিন-ডি এর উৎসঃ-

  • তৈলাক্ত এবং চর্বি যুক্ত মাছ
  • মাশরুম
  • ডিমের কুসুম
  • গরুর দুধ
  • কমলার জুস
  • পনির
  • টপু
  • টকদই
  • কডলিভার তেল
  • সয়ামিল্ক
  • সিরিয়াল
  • চিজ
  • সকালের সূর্যর তাপ গায়ে লাগান তাতেও ভিটামিন ডি রয়েছে।
  • লিভার বা যকৃৎ ইত্যাদি

কতটুকু ভিটামিন ডি একটি মানব দেহে প্রয়োজন?

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার রিপোর্ট বলছে, সারা বিশ্বে প্রায় ১০০ কোটি মানুষ ভিটামিন ডির অভাবে ভুগছেন। গ্লোবাল হেলথ প্রবলেম বলা হচ্ছে ভিটামিন ডি-জনিত ঘাটতিকে। জন্ম থেকে ১২ মাস : ৪০০ আইইউ, ১ থেকে ১৩ বছর : ৬০০ আইইউ, ১৪ থেকে ১৮ বছর : ৬০০ আইইউ, ১৯ থেকে ৭০ : ৬০০ আইইউ, তার ঊর্ধ্বে: ৮০০ আইইউ এবং গর্ভবতী ও স্তন্যদানকারী তরুণী ও মহিলাদের জন্য : ৬০০ আইইউ। চিকিৎসকরা বলছেন, রোদ থেকে পাওয়া ভিটামিন ডির কোনো বিকল্প নেই।

ভিটামিন-ডি এর অভাব জনিত রোগঃ-

  • হাড় গঠনে বাধা প্রধান করে
  • রোগ প্রতিরোধে ক্ষমতা কমে যায়
  • গর্ভের বাচ্চার বিকাশে বাধা প্রধান
  • অঙ্গবিন্যাশে সমস্যা
  • সংবেদনশীলতা
  • হাড়ের গভির যন্ত্রনা
  • পেশীতে ক্লান্তি
  • বাচ্চাদের মধ্যে রিকেট

অতিরিক্ত ভিটামিন-ডি গ্রহনের কুফলঃ-

  • ক্লান্তি
  • মাথাব্যাথা
  • ক্ষুধামন্দা
  • বমি হওয়া
  • মুখ শুক্ন হয়ে যাওয়া
  • খাবারে স্বাদ না পাওয়া
  • কিডনির ক্ষতিও হতে পারে

বিঃদ্রঃ সূর্যের আলোতে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন ডি রয়েছে, তাই সুস্থ থাকতে প্রতিদিন সূর্যের আলো গায়ে লাগান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.