কোন ভ্যাক্সিনের কার্যকারিতা কতোটুকু?

Spread the love

কোন ভ্যাক্সিনের কার্যকারিতা কতোটুকু?

ভ্যাক্সিন নেবার আগে আমাদের মনের মধ্যে অনেক অজানা প্রশ্ন আর সংঙ্কা রয়ে যায় যেমন, আমাদের মনের মধ্যে এমন প্রশ্ন হতেই পারে যে কারা ভ্যাক্সিন নিতে পারবেন? কোন ভ্যাক্সিনের কার্যকারিতা কতটুকু আর এর পার্শ্ব প্রতিকৃয়া কতোটুকু ?  সবচেয়ে বড় প্রশ্ন মনের মধ্যে উঁকি মারে সেটি হচ্ছে গর্ভবতী মায়েরা কি করোনা টিকা নিতে পারবে?

কারা করোনা ভ্যাক্সিন নিতে পারবেন?

১) আঠারো বছরের কম বয়স যাদের তাদের আপাদত করোনা ভ্যাক্সিন নিতে পারবেন না কারন আঠার বয়সীদের ওপর এখনো ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল হয়নি, তাই তাদের দেওয়া যাবে না।

২) যাদের ভ্যাক্সিনে এলার্জি আছে তাদের ভ্যাক্সিন নিতে নিষেধ করা হয়েছে।

৩) যাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম তাদের রোনা ভ্যাকসিন নিতে নিষেধ করা হয়েছে।

৪) যারা ভিন্ন ধরনের একাধিক ওষুধ  খান তাদের ভ্যাক্সিন নিতে বারন করা হয়েছে।

৫) জ্বর, অনিয়ন্ত্রিত ডায়াবেটিস, ক্যান্সার আক্রান্ত রোগী যিনি কেমোথেরাপি বা রেডিওথেরাপি পাচ্ছেন, ২ সপ্তাহের মধ্যে অন্য কোন ভ্যাক্সিন নিয়েছেন তারা ব্যাতীত  সবাই করোনা ভ্যাক্সিন নিতে পারবেন।

কোন ভ্যাক্সিনের কার্যকারিতা কতোটুকু?

১) টিকার নামঃ- মর্ডানা

উদ্ভাক দেশঃ- আমেরিকা

সালঃ- ২০২১

ডোজঃ- ২ টি

কার্যকারীতাঃ- ৯০-৯৪%

২) টিকার নামঃ- সিনোফার্ম

উদ্ভাকঃ- সিনোব্যাক বায়োটেক

 উদ্ভাক দেশঃ- চীন

সালঃ- ২০২১

ডোজঃ- ২ টি

কার্যকারীতাঃ- ৭৮.১-৯০%

৩) টিকার নামঃ- ফাইজার

উদ্ভাকঃ-  বায়োএন্ডটেক

 উদ্ভাক দেশঃ- জার্মানি

সালঃ- ২০২১

ডোজঃ- ২ টি

কার্যকারীতাঃ- ৭০-৯২%

৪) টিকার নামঃ- কোভিশিল্ড

উদ্ভাকঃ- অক্সফোর্ড এন্ড এন্ট্রজেনেকা

 উদ্ভাক দেশঃ- ইংল্যান্ড

সালঃ- ২০২১

ডোজঃ- ২ টি

কার্যকারীতাঃ- ৬০-৮৬%

ভ্যাক্সিনের পার্শ্ব প্রতিকৃয়াঃ জ্বর, মাথা ব্যাথা, শরীর ব্যাথা, ক্লান্তি লাগা, ভ্যাক্সিন দেয়ার জায়গায় মাংসপেশিতে ব্যাথা বা লাল হয়ে যাওয়া। এগুলো যে কারোরই হতে পারে।

গর্ভবতী মায়েরা কি করোনা টিকা নিতে পারবে?

সরকার যদি অনুমোদন দেয় তাহলে  গর্ভের ১৪-৩৩ সপ্তাহের মধ্যে যে কোন ধরনের কোভিড১৯ ভ্যাক্সিন নিতে পারবেন। ১৪-৩৩ সপ্তাহের মধ্যে ২ ডোজ ভ্যাক্সিন গ্রহণ সম্পন্ন করতে পারলে মায়ের শরীরে তৈরি হওয়া এন্টিবডি রক্তের মাধ্যমে গর্ভের শিশুর শরীরে যাবে এবং শিশু করোনাভাইরাস আক্রমণ থেকে সুরক্ষা পাবে।

টিকা নিলে মা এবং বাচ্চার কোন ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে কি না?

গবেষণায় দেখা গিয়েছে এখন পর্যন্ত যে সব দেশে গর্ভবতী মায়েরা টীকা পেয়েছেন তাদের ক্ষেত্রে মায়েদের ভ্যাক্সিন পরবর্তী পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া (যেটা সবারই হতে পারে) ছাড়া অন্য কোনো সমস্যা হয়নি। এবং বাচ্চার কোন সমস্যা হয়েছে বলেও গবেষণায় প্রমান পাওয়া যায়নি।

দুগ্ধদানকারী মা কি ভ্যাক্সিন নিতে পারবে?

হ্যাঁ অবশ্যই পারবেন এবং মায়ের কাছ থেকে বুকের দুধের মাধ্যমে বাচ্চার শরীরে এন্টিবডি গিয়ে বাচ্চাকে সুরক্ষা দিবে।

এতে মায়ের (ভ্যাক্সিনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া বাদে) এবং বাচ্চার কোনো ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা নাই। গর্ববতী মা ভ্যাকসিন নেবার পরে তেমন কোনো সতর্কতার দরকার নাই। স্বাভাবিক জীবন যাপন করতে পারবেন।

2 thoughts on “কোন ভ্যাক্সিনের কার্যকারিতা কতোটুকু?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *