শতমূলী গাছের উপকারিতা

Spread the love

শতমূলী গাছের উপকারিতা

শতমূলী একটি লতানো উদ্ভিদ এ গাছের মূল গুলোকে শতমূল বলা হয়ে থাকে। মটরশুঁটির মত ছোট ছোট ফল যা পাকলে লাল রং এ রূপান্তরিত হয়। শতমূলী গাছেকে আমরা অনেক নামে চিনে থাকি যেমনঃ- শতমূলী, শতাবরী, সাতাওয়ানা ইত্যাদি।
শতমূলী গাছ মানব জীবনের অনেক উপকারে আসে, বিশেষ করে ভেষজ চিকিৎসায় এর অবদান অনন্য বৈশিষ্ট পূর্ণ। শতমূলী গাছের মূল মূলত ঔষধ হিসেবে ব্যবহার হয়ে আসছে।

শতমূলী গাছের উপকারী দিক গুলো জেনে নেইঃ-

শরীরে দুর্বলতাঃ- শরীরে দুর্বলতা কাটিয়ে উঠতে শতমূলী গাছের মূলের ২০ মিলি রস একচামচ চিনি এবং এক গ্লাস দুধের সঙ্গে মিশিয়ে খেলে শারীরিক দুর্বলতা কেটে যায়।

স্বপ্নদোষ ও শুক্রমোহ সমস্যাঃ- শতমূলী গাছের শুষ্ক মূলচুর্ণ করে ৮-১০ গ্রাম পরিমানে করে প্রতিদিন ৩-৪ বার সেবন করলে এই রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

স্তন্যদুগ্ধ বৃদ্ধিঃ- বাচ্চা জন্মের পরে তার মায়ের বুকের দুধ খুব কম হতে দেখা যায় অনেকেরই। যার ফলে বাচ্চার খাবারের চাহিদা পূরণ হয়না, এই স্তনের দুধ বাড়াতে শতমূলী গাছের মূলের ২০ মিলি রস একচামচ চিনি এবং এক গ্লাস দুধের সঙ্গে মিশিয়ে খেলে শারীরিক দুর্বলতা কেটে যায়।

গণোরিয়াঃ- এই রোগ থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য কাঁচা মূলের রস ১২-১৫ গাম প্রতিদিন ২-৩ বার সেবন করলে সমস্যার সমাধান মিলে।

বীর্য গাঢ় করতেঃ- বীর্য পাতলা হলে বাচ্চা হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম থাকে। তাই বীর্য গাঢ় করতে শতমূলী গাছের মূলের রস দুধের সঙ্গে মিশিয়ে খেতে হয়। ১০-১২ মিলি কাঁচা মূলের রস এক গ্লাস দুধের সঙ্গে মিশিয়ে খেতে হবে দিনে ২ বার ১০ দিন।

এছাড়াও শতমূলী গাছের অনেক উপকারিতা রয়েছে যেমন শুক্রমেহ, বলকারক ইত্যাদি রোগের উপকার মিলে।তবে বিশেষ করে খেয়াল রাখতে হবে অধিক পরিমাণে এটি খেলে কোষ্ঠকাঠিন্য ও পেটে গ্যাস হতে পারে।

5 thoughts on “শতমূলী গাছের উপকারিতা

Leave a Reply

Your email address will not be published.